আজ : বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা: রাজবাড়ীর এমপি কন্যার উদ্যোগে দৌলতদিয়া যৌনকর্মিদের মাঝে খাদ্য বিতরণ


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৭:৩০ অপরাহ্ণ ,২৮ মার্চ, ২০২০ | আপডেট: ৭:১৫ অপরাহ্ণ ,২৯ মার্চ, ২০২০
করোনা: রাজবাড়ীর এমপি কন্যার উদ্যোগে দৌলতদিয়া যৌনকর্মিদের মাঝে খাদ্য বিতরণ

গোয়ালন্দ সংবাদদাতা।। মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আতঙ্কে ও প্রতিরোধে ২৬শে মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশ ১০ দিনের জন্য লক ডাউনের ঘোষনা দিয়েছে সরকার। সেই নির্দেশনায় দেশের সর্ববৃহৎ দৌলতদিয়ার ৪ হাজার যৌনকর্মি বসবাসরত পতিতা পল্লীসহ রাজবাড়ী জেলা লক ডাউন করেছে প্রশাসন। দূর্বিসহ হয়ে উঠেছে সেখানকার জীবনচিত্র।

এই দূর্যগ মূহুর্তে সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলীর সহযোগিতায় তার একমাত্র কন্যা কানিজ ফাতেমা চৈতীর উদ্যোগে- মানবেতর জীবন-যাপনের মধ্যোদিয়ে বেঁচে থাকা দৌলতদিয়ার যৌন পল্লির ৪ সহস্রাধিক যৌনকর্মীদের মাঝে খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। জনপ্রতি ২ কেজি আটা, ১ কেজি আলু এবং ১ লিটার সয়াবিন তেল প্রদান করা হয়।

২৮ মার্চ-২০২০ শনিবার দুপুরের দিকে ১ হাজার ৩ শত জন যৌনকর্মীর মাঝে ২ হাজার ৬ শত কেজি আটা, ১ হাজার ৩ শত কেজি আলু এবং ১ হাজার ৩ শত লিটার সয়াবিন তেল বিতরণ করা হয়।
খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন- গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হাসান শিপলু, দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, দোলতদিয়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল গনি, ২ নং ওয়ার্ড সদস্য মোঃ আশরাফুল ইসলাম, দৌলতদিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ন-সম্পাদক মোঃ আজিজুল ইসলাম মন্ডল আরিয়ান প্রমূখ।
এমপি কাজী কেরামত আলী কন্যা কানিজ ফাতেমা চৈতীর জানান- করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষে পতিতা পল্লী লকডাউন করা হয়েছে। যে কারণে সেখানকার যৌনকর্মীরা মানবেতর জীবন যাপন করছেন। আর সে কারণে তার বাবা ও তিনি তাদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে যৌনকর্মীদের মুখে আহার তুলে দেবার চেষ্টা করেছেন।

Comments

comments