আজ : শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৌলতদিয়া ও দেবগ্রামের নির্বাচন নিয়ে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ২:২৪ অপরাহ্ণ ,১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৩০ অপরাহ্ণ ,১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
দৌলতদিয়া ও দেবগ্রামের নির্বাচন নিয়ে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা

উজ্জ্বল চক্রবর্ত্তী।। ব্যাপক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে আগামী ১৬ই সেপ্টেম্ব-১৯ সোমবার অনুষ্ঠিত হতে চলেছে দেশের আলোচিত-সমালোচিত রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়ন ও গুরুত্বপূর্ণ  দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন।বিশ্লেষকদের মতে, এ নির্বাচনকে ঘিরে রাজবাড়ী জেলা ও গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামীলীগের মধ্যে স্পষ্ট বিভক্তির সৃষ্টি হয়েছে। রাজনীতিতে নেতৃত্ব ও কর্তৃত্ব স্থাপনের অনেকটাই নির্ভর করছে এ নির্বাচনের ফলাফলের উপর। স্থানীয়দের মতে দুটি ইউনিয়নের নির্বাচন হলেও সকলের দৃষ্টি দৌলতদিয়ার দিকে। এ নির্বাচনকে ঘিরে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের ব্যাপারে ব্যাপক উদ্বেগ রয়েছে। সাধারন ভোটারদের মনে একটাই প্রশ্ন; অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে তো ??

এমন পরিস্থিতিতে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনের আগের দিন র‌্যাব, বিজিবি, আনছারসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে মতবিনিময় বৈঠক করেছেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম ও পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান। এ সভায়, অবাধ-সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভাবে নির্বাচন পরিচালনা ও নির্বাচনী আচরনবিধি সমুন্নত রাখতে নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারীদের প্রতি দিক নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

১৫ সেপ্টেম্বর-১৯ রবিবার দুপুরের দিকে গোয়ালন্দ উপজেলা সন্মেলন কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলুর সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায়- প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন- জেলা নির্বাচন কর্মকতা মোঃ হাবিববুর রহমান, বিজিবি’র কমান্ডার মেজর রহমত উল্লাহ, এনএস আই’র উপ-পরিচালক শরিফুল ইসলাম, র‌্যাবের অফিসার হাবিবুর রহমান ও গোয়ালন্দ থানার ওসি রবিউল ইসলাম প্রমূখ।

জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার তাদের বক্তব্যে বলেন, আমরা জানি এ নির্বাচনকে ঘিরে অনেকের মনে নানা ধরণের উদ্বেগ কাজ করছে। তবে আমরা সকলকে আশ্বস্ত করে বলতে চাই, নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য হবে। শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় প্রয়োজনের চেয়েও অনেক বেশী প্রস্তুতি রয়েছে আমাদের। যে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা কঠোরভাবে মোকাবেলা করা হবে। ভোটাররা নির্বিঘ্ন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।

এ সময় নির্বাচনী পরিবেশ ও আইন সমুন্নত রাখতে সকলকে সর্বোচ্চ সতর্কতার সাথে দায়িত্ব পালন ও যে কোন অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত আছে জানিয়ে ভয়ভীতির উর্দ্ধে থেকে সংশ্লিষ্টদের দায়িত্ব পালনের নির্দেশ প্রদান করেন জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম।

Comments

comments