আজ : শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ও ক্যাম্প ৯ জুলাই শুরু


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ ,৪ জুলাই, ২০১৯ | আপডেট: ১১:২২ অপরাহ্ণ ,৪ জুলাই, ২০১৯
জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ও ক্যাম্প ৯ জুলাই শুরু

জনতার মেইল ডটকম।। জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার জাতীয় ক্যাম্প শুরু হচ্ছে ৯ জুলাই মঙ্গলবার। দুই পর্বের এ জাতীয় ক্যাম্প শেষ হবে আগামী ১৪ জুলাই-২০১৯। সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

আয়োজক সংস্থার জরুরি বৈঠকে জাতীয় ক্যাম্পের এ তারিখ চূড়ান্ত করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেন আয়োজকর। ‘অবাক হচ্ছে বিশ্ব এবার, বাংলার শিশুরা প্রোগ্রামার’ শিরোনামে প্রতিযোগিতার আয়োজক সরকারের আইসিটি বিভাগ এবং ইয়াং বাংলা

আয়োজক সূত্র জানায়, দেশের ৬৪ জেলায় স্ক্র্যাচ প্রতিযোগিতায় নির্বাচিতদের প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতার স্ক্র্যাচ ক্যাম্প শুরু হবে ৯ জুলাই। প্রশিক্ষণ শেষে ১১ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা। এতে অংশ নেবে ১ম থেকে ৫ম শ্রেণির ৬৪টি দল।

এরআগে, গত ১৫ ও ১৬ জুন প্রশিক্ষণ শেষে ১৭ জুন অনুষ্ঠিত হয় জেলাভিত্তিক স্ক্র্যাচ প্রতিযোগিতা। এতে সারাদেশে ৩ হাজার ৫শ ২৭টি দলে অংশ নেয় ১ম থেকে ৫ম শ্রেণির প্রায় সাড়ে ১১ হাজার খুদে শিক্ষার্থী। যে সংখ্যাটিকে মাইলফলক হিসেবে দেখেছেন আয়োজকরা।

একদিন বিরতি দিয়ে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ৬৪ জেলায় পাইথন প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত নিয়ে ‘পাইথন ক্যাম্প’ শুরু হবে ১২ জুলাই। প্রশিক্ষণ শেষে ১৪ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে পাইথন চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা। পাইথন জুনিয়র ও সিনিয়র ক্যাটাগরিতে প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে একশ’ ২৮ জন শিক্ষার্থী।

এরআগে, গত ১৮ ও ১৯ জুন প্রশিক্ষণ শেষে ২০ জুন পাইথন জেলাভিত্তিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেয় ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণির প্রায় ১৫ হাজার প্রতিযোগী। এবার পাইথনে সদ্য পাসকরা এসএসসি পরীক্ষার্থীরাও অংশ নেয়ার সুযোগ পেয়েছে।

জাতীয় ক্যাম্পের বিষয়ে, সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)-এর সহযোগী সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ জনতার মেইল.কম কে বলেন, জাতীয় ক্যাম্পে জেলা পর্যায়ে স্ক্র্যাচ ও পাইথনে বিজয়ীদের নিয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। দু’দিনের প্রশিক্ষণ শেষে অংশগ্রহণকারীরা ১১ জুলাই, স্ক্র্যাচ ও ১৪ জুলাই পাইথন (জুনিয়র ও সিরিয়র) চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে। সেখান থেকে বাছাই করা হবে দেশসেরা শিশু ও কিশোর প্রোগ্রামার।

এদিকে, জাতীয় ক্যাম্প শেষে চূড়ান্ত হবে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের তারিখ। সমাপণী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় ক্যাম্পে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন বলে আশা করছেন আয়োজকরা।

Comments

comments