আজ : রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আসন্ন SSCপরীক্ষার কক্ষ পরিদর্শকদের সাথে গোয়ালন্দে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৫:১১ অপরাহ্ণ ,৩০ জানুয়ারি, ২০১৯ | আপডেট: ১১:১৭ অপরাহ্ণ ,৩০ জানুয়ারি, ২০১৯
আসন্ন SSCপরীক্ষার কক্ষ পরিদর্শকদের সাথে গোয়ালন্দে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি।। আসন্ন এসএসসি, এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল পরীক্ষা-২০১৯ উপলক্ষে কক্ষ পরিদর্শকদের সাথে গোয়ালন্দে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার এসএসসি, এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্র কমিটির আয়োজনে ৩০শে জানুয়ারী-১৯ বুধবার বিকাল ৩.টার দিকে উপজেলা পরিষদ হল রুমে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলু’র সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন- উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাসুদুর রহমান, উপজেলা পরীক্ষা কেন্দ্রীয় সচিব ও গোয়ালন্দ নাজিরউদ্দিন সরকারি মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জহুরুল ইসলাম সহ প্রমূখ।

মতবিনিময় সভার সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়েত হায়াত শিপলু তার নির্দেশনামূলক বক্তব্যে বলেন- ফেব্রুয়রীর ২ তারিখ থেকে পরিক্ষা শুরু।পরিক্ষ কেন্দ্র (স্কুল) পরিষ্কার-পরিছন্ন থাকতে হবে, প্রয়োজনীয় আলোর ব্যাবস্থা থাকতে হবে, বাতরুম বা টয়লেট পরিস্কার থাকতে হবে, খাবার ও ব্যাবহার উপযোগী পর্যাপ্ত পরিমান পানির ব্যাবস্থা থাকতে হবে। প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানের ব্যাবস্থাও থাকতে হবে।

পরিদর্শকদের প্রদেয় ভাতার বিষয়ে তিনি বলেন- আসলে ওইভাবে সন্মানি দেওয়া সম্ভবনা, আর আমি একজন টিচারের সন্তান।যার কারনে শিক্ষকদের আমি আলাদাভাবে সন্মান করি। যাতে তার (পরিদর্শকের) পকেট থেকে টাকা খরচ না হয় সে কারনে জাস্ট যাতায়াত ও নাস্তা বাবদ দেওয়া হয়ে থাকে।

তিনি আরো বলেন- দায়িত্বরত ব্যাক্তি বা শিক্ষক ছাড়া পরিক্ষা কেন্দ্রে বাইরের কেউ প্রবেশ নিষেধ। সে যেই হোক না কেন, যদি কারো বিশেষ প্রয়োজন থাকে তাহলে সরাসরি আমার সাথে কথা বলতে হবে।

পরীক্ষা কেন্দ্রীয় সচিব জহুরুল ইসলাম দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্যে বলেন- এসএসসি পরিক্ষা কেন্দ্রে এন্ড্রুয়েট মোবাইল ফোন, মোবাইলযুক্ত ইলেকট্রনিকস হাত ঘড়ি, অত্যধনিক ইলেকট্রনিকস ক্যালকুলেটর সহ ইন্টারনেটযুক্ত ইলেকট্রনিকস সামগ্রী ব্যাবহার করা যাবেনা।চেনার জন্য বোরখা পরিহিত ছাত্রীদের ক্ষেত্রে মুখ খোলা থাকতে হবে।কক্ষ পরিদর্শক শিক্ষকদের জন্য ভাতা স্বরুপ ১৬০ টাকা করে নির্ধারন করা হয়েছে।

এ সভায়, আঞ্জুমান-ই-কাদেরীয়া মাদরাসাতু সাবি-ইল-হাসান দাখিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ আনিসুর রহমান, চৌধুরী মাহবুব হোসেন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আবু নাছের, “শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব” এর রাজবাড়ী জেলা সমন্বয়ক এস.এম. রিয়াজুল করিম সহ গোয়ালন্দ উপজেলার সকল সরকারী / বে-সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দাখিল মাদ্রাসা ও কারিগড়ি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকগন উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments