আজ : রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

“রাজবাড়ী শহর রক্ষা প্রকল্প ফেজ-২” উদ্বোধন; বরাদ্দ ৩৪২ কোটি টাকা


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৮:৪৫ অপরাহ্ণ ,২০ জুন, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৫১ অপরাহ্ণ ,২২ জুন, ২০১৮
“রাজবাড়ী শহর রক্ষা প্রকল্প ফেজ-২” উদ্বোধন; বরাদ্দ ৩৪২ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিনিধি ।। বহুত প্রতিক্ষার পর অবশেষে “রাজবাড়ী শহর রক্ষা প্রকল্প ফেজ-২” অস্থায়ী জরুরী প্রতিরক্ষার কাজের আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে।আগামী শুকনা মৌসুমে স্থায়ী প্রতিরক্ষার কাজ শুরু করা হবে।
রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের পূর্ব উড়াকান্দা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে ২০শে জুন-১৮ বুধবার দুপুরে বালু ভর্তি জিও ব্যাগ নদীতে ফেলে উদ্বোধন করেন শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী ও রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলী। এ উদ্বোধন উপলক্ষ্যে সেখানে দোয়ার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর আগে রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় “রাজবাড়ী শহর রক্ষা প্রকল্প ফেজ-২” শীর্ষক প্রকল্পের কাজ বাংলাদেশ নৌ-বাহিনী পরিচালিত খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেড কর্তৃক সম্পাদনের বিষয়ে সমন্বয় সভা।

জেলা প্রশাসক শওকত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন, শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী ও রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি কামরুন নাহার চৌধুরী, খুলনা শিপইয়ার্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমোডর আনিসুর রহমান মোল্লা, রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বিপিএম, রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বার, পানি উন্নয়ন বোর্ড ফরিদপুর কার্যালয়ের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী একেএম ওহায়েদ উদ্দিন চৌধুরী, একই কার্যালয়ের তত্তাবধায়ক প্রকৌশলী আব্দুল হেকিম, রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, জেলা পনি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রকাশ কৃষ্ণ সরকার প্রমুথ।
সভায় জানানো হয়, পদ্মা নদীর ভাঙ্গন রোধে “রাজবাড়ী শহর রক্ষা প্রকল্প ফেজ-২ প্রকল্পের জন্য বিগত বছরের ১ আগষ্ট একনেকে প্রায় ৩ শত ৪২ কোটি টাকা অনুমোদিত হয়। এ প্রকল্পের আওতায় সাড়ে ৫ কিলো মিটার পদ্মা নদীর ডান তীর সংরক্ষণ এবং ৪.৭০০ কিলো মিটার পদ্মা নদীর ড্রেজিং কাজ বিগত বছরের জুলাই মাস থেকে ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত চলার কথা। তবে এ প্রকল্পের কাজ বাংলাদেশ নৌ-বাহিনী পরিচালিত খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেড-এর মাধ্যমে ডিপিএম পদ্ধতীতে বাস্তবায়নের নিমিত্তে ক্রয়প্রস্তাবটি গত ১৮ এপ্রিল সরকারী ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে অনুমোদন লাভ করে এবং গত ৭ জুন চুক্তিপত্র সম্পাদন করে।

Comments

comments