আজ : বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে ২টি প্রাইভেটকার ভর্তি ১০০৫ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-৩


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৮:০১ অপরাহ্ণ ,১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট: ১১:০৬ অপরাহ্ণ ,১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯
রাজবাড়ীতে ২টি প্রাইভেটকার ভর্তি ১০০৫ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক-৩

স্টাফ রিপোর্টার।। রাজবাড়ীর মহাসড়কে পৃথক অভিযান চালিয়ে ১ হাজার ৫শ বোতল ফেনসিডিল ও ২ টি প্রাইভেটকার জব্দসহ ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে ফরিদপুর র‌্যাব-৮।

১২ ডিসেম্বর-১৯ বৃহস্পতিবার সকাল সারে ৮.টার দিকে রাজবাড়ী জেলা সদরের কল্যানপুর চাতাল মার্কেটের সামনে রাজবাড়ী-ঢাকা মহাসড়কের উপর থেকে একটি কালো রংয়ের প্রাইভেটকার তল্লাশী করে ৫৫৭ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ  মোঃ আশরাফুল ইসলাম (২৫) নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

এ সময়, তার কাছ থেকে মাদক ক্রয়-বিক্রয় কাজে ব্যবহৃত ৪ টি সিমকার্ডসহ ২টি মোবাইল ফোন, নগদ ৫,০০০/- টাকা, এবং মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ১টি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়। সে, চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের ঝাঝড়ি বেগমপুর বিলপাড়া গ্রামের মোঃ মতিয়ার রহমানের ছেলে।

অপরদিকে, একই দিন দ্বিতীয় অভিযানে- দুপুর সারে ১২.টার দিকে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দঘাট থানাধীন দৌলতদিয়া ফেরীঘাটের ৫-নং ঘাটের সামনে থেকে একটি নেভীব্লু রংয়ের প্রাইভেটকার তল্লাশী করে ৬৪৮ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধারসহ মোঃ সজীব আহম্মেদ (২৮) ও  মোঃ রুহীন হোসেন বাপ্পী (২৫) নামের আরো ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। এ সময় ৫ টি সিমকার্ডসহ ৩টি মোবাইল ফোন ও ১টি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়।

আটককৃত মোঃ সজীব আহম্মেদ- চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুরহুদা উপজেলার মোহম্মদপুর  কেরু আমতলা গ্রামের মৃত নূরুল ইসলাম @  নুরুর ছেলে এবং মোঃ রুহীন হোসেন বাপ্পী- মাগুরা জেলা সদরের গাংনালীয়া গ্রামের মৃত রেজাউল খানের ছেলে।

এ বিষয়ে, র‌্যাব-৮, সিপিসি-২, ফরিদপুর ক্যাম্পর  কোম্পানী অধিনায়ক মেজর আব্দুল্লাহ আল মঈন হাসান এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জনতার মেইলকে জানান- আটককৃত ৩ জন আসামীদের নিকট থেকে সর্বমোট ১,০০৫ (এক হাজার পাঁচ) বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল, ৯টি সিমকার্ড সহ ৪টি মোবাইল ফোন,নগদ ৫,০০০/- টাকা এবং ফেন্সিডিল পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ২টি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ফেন্সিডিল ও অন্যান্য আলামতসহ গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী জেলার সদর ও গোয়ালন্দঘাট থানায় পৃথক দুইট মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে ও উক্ত চক্রের অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

Comments

comments