আজ : রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপি কর্মীদের হামলায় রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার ওসিসহ ৩ পুলিশ আহত।


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৫:১৭ অপরাহ্ণ ,২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | আপডেট: ১:৫৯ পূর্বাহ্ণ ,১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
বিএনপি কর্মীদের হামলায় রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার ওসিসহ ৩ পুলিশ আহত।

টাফ রিপোর্টার।। রাজবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনে বিএনপি’র নেতা-কর্মীদের হামলায় রেলওয়ে থানার ওসিসহ ৩ জন পুলিশ আহত।

আহতদের মধ্যে রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার এসআই বিধান ও নারী কনস্টেবল শারমিনকে রক্তাক্ত অবস্থায় রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এবং রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার ওসি সোমনাথ বসুর ডান চোখ ফুলে যেতে গেছে।

জানাযায়, ২রা সেপ্টেম্বর (শনিবার) বিএনপির ৪৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজবাড়ী-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়মের নেতৃত্বে তার বাসভবন থেকে র‌্যালি বের করা হয়। অপরদিকে, জেলা বিএনপির আহবায়ক এ্যাড. লিয়াকত আলী বাবু ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর রশিদ হারুন ও জেলা বিএনপির সদস্য সচিব এ্যাড. কামরুল আলমের নেতৃত্বে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে আরেকটি র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। তবে, সাবেক সংসদ সদস্য আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়মের নেতৃত্বাধীন র‌্যালিটি তার বাসা থেকে বেড় হয়ে রাজবাড়ী জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সামনে পৌঁছালে নেতাকর্মিদের আজেবাজে শ্লোগান ও উচ্ছৃঙ্খলতার কারনে পুলিশ তাতে বাঁধা দেয়। এতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে বিএনপি নেতাকর্মীরা। পরে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপে, ভাঙচুর ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। আজ শনিবার দুপুর ১২.টার দিকে শহরের শিল্পকলা মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের লাঠিচার্জ ও টিয়ারসেল নিক্ষেপে নেতাকর্মীরা ছত্র ভঙ্গ হয়ে যায়। সেখান থেকে কিছু নেতা কর্মী গিয়ে রাজবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম ওঠে।

প্ল্যাটফর্মে অবস্থান নেওয়া নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে রেলওয়ে পুলিশ বলে আপনার মেসেঞ্জার হলে টিকিট কাটেন আর তা না হলে এখান থেকে সরে যান। এ কথা বলে পুলিশ বাঁশি ফুঁ দিলে বিএনপি’র কর্মীরা পুলিশের উপরে হামলা চালায়, রেলের ভিতরে থাকা খোয়া নিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে ঢিল ছুড়ে। তাদের ছোঁড়া খোয়ার আঘাতে এসআই বিধান ও নারী কনস্টেবল শারমিনের মাথা ফেঁটে যায় এবং ওসি সোমনাথ বসুর ডান পাশের চোখ খুলে যায়।

এ ঘটনায় ওসি সোমনাথ বসু বলেন, আমরা তাদেরকে টিকিট কাটতে বলেছি আর না কাটলে প্ল্যাটফর্ম থেকে চলে যেতে বলেছি, এ কথা বলায় তারা দলবদ্ধভাবে আমাদের উপরে হামলা চালায়, আমাদের ওপরে বৃষ্টির মতো ঢিল ছোড়ে, ঢিলের আঘাতে আমার ডান পাশের চোখ ফুলে গেছে, এখনো ডাক্তারের কাছে যাইনি যাব। আমার এক নারী কনস্টেবল ও এক এসআই রক্তাক্ত জখম হয়েছে, তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে জেলা পুলিশকে ফোন করলে তারা আসার আগেই সবাই চলে যায়।

রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) মো. সালাহউদ্দিন বলেন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মিছিল থেকে পুলিশের ওপর হামলা ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে ৩ জন পুলিশ সদস্য আহত হন। তারা সরকারি অফিসসহ ব্যানার ফেস্টুন ভাঙচুর করে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। তবে কতজন আটক বা কতজন আহত হয়েছেন তা জানাননি তিনি। পরে এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলতে পারবেন বলে জানান মো. সালাহউদ্দিন।

Comments

comments