আজ : বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেইসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ১ যুবক আটক


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৬:৫৬ অপরাহ্ণ ,১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৫৮ অপরাহ্ণ ,১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯
ফেইসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ১ যুবক আটক

স্টাফ রিপোর্টার।।  অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্রীর নাম ও ছবি ব্যবহার করে ফেইসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে সজিব খান সম্রাট (২৫) নামে এক যুবককে আটক করেছে মাদারীপুর র‌্যাব-৮।

র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩, মাদারীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে ১১ ডিসেম্বর-১৯ বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৬.টার দিকে  মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানাধীন পূর্ব-স্বরমঙ্গল গ্রামস্থ টেকেরহাট বাজারাধীন শিমুলতলা নামকস্থানে ইউএস মডেল হাসপাতাল ও ডায়াগনাষ্টিক সেন্টার এলাকায় অভিযান পরিচালনা তাকে আটক করা হয়।

আটককৃত ব্যক্তি-  মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার পূর্ব-স্বরমঙ্গল গ্রামের আব্দুল জলিল খানের ছেলে।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় যে, আনুমানিক ৮/৯ নয় মাস পূর্বে ভিকটিম কোচিং এ যাওয়ার পথে অভিযুক্ত সজিব খান সম্রাট (২৫) ভিকটিম অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় সে তার সরলতার সুযোগ নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক নির্জন স্থানে নিয়ে ভিকটিমের ইচ্ছার বিরুদ্ধে অশ্লীল ছবি তুলে এবং ভিডিও ধারণ করতে বাধ্য করে। অভিযুক্ত সজিব খান সম্রাট (২৫) তার মোবাইলে উক্ত ছবি গুলো ধারণ করে ভিকটিমকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বলে যদি উক্ত ধারণকৃত ছবি ও ভিডিওর বিষয়ে বাড়াবাড়ি করে তবে তাকে জীবনে শেষ করে দেবে এবং ভিকটিমের অশ্লীল ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি প্রদান করে। একপর্যায়ে অভিযুক্ত সজিব খান সম্রাট (২৫) তার মোবাইলে ধারণকৃত অশ্লীল ছবি গুলি ভিকটিমের নামে একটি ফেসবুক আইডি খুলে অভিযুক্ত সজিব খান সম্রাট (২৫) তার ফেইসবুক আইডি ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়। উক্ত ঘটনা হতে পরিত্রাণ পাওয়ার লক্ষে ভিকটিমের পিতা মাদারীপুর র‌্যাব ক্যাম্পের নিকট অভিযোগ দায়ের করেন। তদপ্রেক্ষিতে তাকে আটক করা হয়।

আটকের পর, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত সজিব খান সম্রাট (২৫) উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

আটককৃত সজিব খান সম্রাট (২৫) ব্যবহৃত মোবাইল জব্দ করা হয় এবং উক্ত জব্দকৃত মোবাইলে ভিকটিমের নাম ও ছবি সম্বলিত ভূয়া ফেইসবুক আইডি পাওয়া যায়।

এ সংক্রান্তে ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

Comments

comments