আজ : বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীর রেজিষ্ট্রি অফিসে চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তার ও জৌকুড়া সড়কে ভারি বালির ট্রাক চলাচল বন্ধের নির্দেশ দিলেন-এমপি


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ ,২৬ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৩৩ অপরাহ্ণ ,২৮ অক্টোবর, ২০১৯
রাজবাড়ীর রেজিষ্ট্রি অফিসে চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তার ও জৌকুড়া সড়কে ভারি বালির ট্রাক চলাচল বন্ধের নির্দেশ দিলেন-এমপি

স্টাফ রিপোর্টার।। রাজবাড়ী সদর উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে যারা চাঁদা চাইতে গেছে সেইসব চাঁদাবাজদের দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেপ্তার করতে হবে বলে- পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিলেন রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি ও সাবেক শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী।

কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে ২৬শে অক্টেবর-১৯ শনিবার দুপুরে রাজবাড়ীর পুলিশ লাইনের ড্রিলসেডে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় তিনি কথা বলেন।

*এসময় তিনি আরো বলেন-মহাসড়কে ট্রাকে চাঁদাবাজী হয়। শ্রমিক ফেডারেশন থেকে চিঠি দিয়েছে দেশের মহাসড়কে চাঁদা তোলা যাবে না। অথচ রাজবাড়ীর জেলা শহরের পুলিশ লাইনের সামনে, টার্মিনালের সামনে, আলাদীপুর জুট মিলের সামনে, জৌকুড়া ধাওয়াপাড়া সড়কে ও দৌলতদিয়া ঘাট টার্মিনাল এলাকায় চাঁদা তোলা হচ্ছে। এ সব চাঁদা তোলা বন্ধ করতে হবে। যদি দূর্ণীতি বন্ধ করতে হয় তাহলে সব জায়গায় বন্ধ করতে হবে। এক জায়গায় বন্ধ করলে হবে না।

*রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি বলেন- ভারি ওজনের বালির ট্রাক চলাচলের কারনে জৌকুড়ার ধাওয়াপাড়া সড়ক ভেঙ্গে যায়, বেশি দিন টেকেনা। নতুন রাস্তা করতে না করতেই সেটা সেটা ভেঙ্গে যায়। চলাচলে অযোগ্য হয়ে যাওয়ার ফলে একদিকে জনগনের ভোগান্তি পোহাতে হয়, আরেকদিকে সড়ক মেরাতে সরকারের প্রচুর অর্থ গচ্ছা যায়। সে কারনে ওই রাস্তায় বালির ট্রাক চলাচল করতে দেওয়া যাবেনা বলে তিনি জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের উদ্দেশ্যে এসব বন্ধ করার অনুরোধ করেন।

তিনি আরো বলেন- আমরা দূর্ণীতি চাই না। পুলিশ ও জনতা এক সাথে মিলে মিশে কাজ করবো এটাই হোক আমাদের অঙ্গীকার।

একই সভায় আগত সদর উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি এসএম নওয়াব আলী বলেন, চাঁদা দাবীর কারণে রাজবাড়ী সদর সাব রেজিষ্টারের কার্যালয়ে জমি রেজিষ্ট্রেশন বন্ধ রয়েছে। তিনি আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ওই সব চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তার করার দাবী জানান।
ওই সভায় আগত রাজবাড়ী-২ আসনের এমপি মোঃ জিল্লুল হাকিম বলেন, নেতাদের ভালো হতে হবে। তাদের দুর্ণীতি মুক্ত এবং দুর্ণীতির চিন্তা মুক্ত হতে হবে। ক্যাসিনো থেকে নেতাদের টাকা নেয়ার কি দরকার ছিলো।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম বলেন, মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীরা কিছু করেনা, তবে চলে কিন্ত রাজার হালে, এমন ব্যক্তিদের তালিকা পুলিশকে দেন। আমরা ব্যবস্থা নেব। এতে পুরো সমাজ ভালো থাকবে।

পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় রাজবাড়ী-২ আসনের এমপি মোঃ জিল্লুল হাকিম, রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী, জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বার, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের আহবায়ক আবুল হোসেন, সদস্য সচিব আহম্মেদ নিজাম মন্টু, সদর উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি এসএম নওয়াব আলী, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ রহিম মোল্লা প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

         

উল্লেখ্য, রাজবাড়ী সদরের ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার ও দলিল লেখক সমন্বয় সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছিমুল হক রনি সদর উপজেলা সাব রেজিষ্টারসহ ওই কর্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হুমকী-ধামকী প্রদান ও চাঁদা দাবী করেন। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক সেখানকার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। তবে সেখানকার কর্মচারীরা ভয়-ভীতির মধ্যে রয়েছেন।

Comments

comments