আজ : বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোয়ালন্দে লাশ উদ্ধার; থানায় হত্যা মামলা দায়ের


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ১২:২৮ অপরাহ্ণ ,৮ আগস্ট, ২০১৯ | আপডেট: ২:৩১ অপরাহ্ণ ,৯ আগস্ট, ২০১৯
গোয়ালন্দে লাশ উদ্ধার; থানায় হত্যা মামলা দায়ের

সোহাগ মিয়া-গোয়ালন্দ সংবাদদাতা।। মো. মজনু সরদার (৪০) নামের এক ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

মৃত ব্যাক্তি, মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলার নবগ্রামের মৃত খৈমদ্দিন সরদারের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা পুলিশ সূত্র জানায়, ৮ আগষ্ট বৃহস্পতিবার সকালে রাজবাড়ী জেলার উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের সিদাম দত্তের পাড়া এলাকায় মহাসড়কের কিছু দুরে ওই ব্যাক্তি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এসময় মৃত ব্যাক্তির কাছে থাকা ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে তার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে পরিবারের কাছে খবর দেয় এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতল মর্গে পাঠায়।
নিহত মজনুর ভাই আ. গফুর সরদার জানান, তার ভাই জাহাজে বাবুর্চির সহকারী হিসেবে কাজ করে। গত ২৬ জুলাই সে বাড়ি থেকে কর্মস্থলে গিয়ে বুধবার খুলনার মোংলা থেকে বাড়িতে আসছিল।

মৃত ব্যাক্তির ছেলে রবিউল হোসেন জানায়, বুধবার দিনগত রাত ১.টার দিকে তার বাবা তার মাকে ফোন করে বলেন, তার বাবা গোয়ালন্দে মহসড়কের যানজটে আটকে আছে। যেহেতু ঘাট থেকে অনেক দুরে তাই অন্য কোন উপায়ে রওনা না দিয়ে বাসের মধ্যেই বসে থাছি। সকাল নাগাদ পৌছে যাব। কিন্তু সকালে বাবার মৃতদেহ উদ্ধারের খবর পাই। এ সময় সে আরো বলে, তার বাবার কোন শত্রু আছে বলে জানা নেই। তাছাড়া তার বাবার গোয়ালন্দে যাতায়াতও ছিল না বলে সে জানায়।

এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, কিভাবে বা কি কারণে ওই ব্যাক্তির মৃত্যু হয়েছে তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে মৃতদেহের গায়ে কোন আঘাতের চি‎হ্ন নেই। আবার তার কাছে থাকা কিছু টাকা ও মোবাইল ফোনটিও অক্ষত রয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। তবে এ ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে পুলিশ ইতিমধ্যে মাঠে নেমেছে। এ ঘটনায় গোয়ালন্দা ঘাট থানায় অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের আসামী করে একটি হত্যা মামলা রুজ হয়েছে বলে তিনি জানান।

Comments

comments