আজ : বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী গণধর্ষণকারী পাবনা থেকে গ্রেপ্তার


প্রতিবেদক
জনতার মেইল.ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ ,৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ | আপডেট: ৩:৪৯ অপরাহ্ণ ,৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
রাজবাড়ীতে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী গণধর্ষণকারী পাবনা থেকে গ্রেপ্তার

উজ্জল চক্রবর্ত্তী-স্টাফ রিপোর্টার।। রাজবাড়ীতে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনার প্রধান আসামি ঘোড়ার গাড়ী চালক রেজাউল প্ররামানিক (২৭) কে ৪ ফেব্রুয়ারী-১৯ সোমবার সকালে পাবনা জেলার নাজিরগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আটক ব্যাক্তি, রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের কান্তনগর গ্রামের আয়নাল প্রমানিকের ছেলে। লম্পট রেজাউলের স্ত্রী সহ ১ ছেলে ও ২ মেয়ে সন্তান রয়েছে। এছাড়াও রেজাউল ইতোপূর্বে আরো দুইটি বিয়ে করেছিলো বলে জানাগেছে।

এর আগে গত রবিবার ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের চর শিবরামপুর গ্রামের আফজাল মোল্লার ছেলে অপর ঘোড়ারগাড়ী চালক ছেলে মিলন মোল্লা (২৬) কে পুলিশ গ্রেপ্তার করে জেল-হাজতে প্ররেণ করেছে।

মামলার বাদী ধর্ষিতা ছাত্রীর বাবা জানান, গত শুক্রবার বিকালে তার মেয়ে (১১) নিজ বাড়ীর পাশের মাঠে থাকা একটি ভুট্টা ক্ষেতে ঘোড়ার জন্য ঘাস কাটতে যায়। ওই সময় মিলন ও রেজাউল তাকে জোরপূর্বক ওই ক্ষেতের মধ্যে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এর পর ধর্ষকরা তার মেয়েকে ভয়ভীতি দেখায় এবং কাউকে কোন কিছু বলতে নিষেধ করে। মেয়েটি ভয়ে বিষয়টি আর কাউকে জানায়নি।

গত শনিবার সকালে মেয়েটি অসুস্থ্য হয়ে পরে। সে সময় মেয়ের মা তাকে অসুস্থ্যতার কারণ জিজ্ঞাসা করে। পরে মেয়েটিকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অসুস্থ্য মেয়েটি জানায়, ঘটনার দিন সে ঘাস কাটতে গেলে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে রেজাউল তাকে প্রথমে এবং পরে মিলন তাকে ধর্ষণ করে। আর ধর্ষণের পর রেজাউল ও মিলন তাকে ও তার পরিবারের অন্যান্যে সদস্যদের ক্ষতি করার হুমকী দেয়। যে কারণে সে বিষয়টি তার মা বাবাকে জানায়নি।
রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, গত রবিবার সকালে ওই ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই মেয়েটির ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হয়েছে।

এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও রাজবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার হওয়া রেজাউল প্রমাণিক ও মিলন মোল্লা ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করেছে।

Comments

comments